Online Bangla News
বাংলাদেশ

পিরোজপুরে চিকিৎসায় অবহেলায় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী কিশোরের মৃত্যু

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসায় অবহেলায় সজীব উকিল (১৪) নামের এক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী কিশোরের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রেজাউল ইসলামকে প্রধান করে ছয় সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

মৃত সজীব উপজেলার চরখালী গ্রামের মোজাম্মেল উকিলের ছেলে।

পরিবারের অভিযোগ, রোববার (৮ এপ্রিল) সকালে হাসপাতালে ভর্তির পর কোনো চিকিৎসা না পেয়ে প্রায় ৫ ঘণ্টা পর ওই কিশোরের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে ভর্তির ৫ ঘণ্টায়ও তাকে কোনো চিকিৎসা দেওয়া হয়নি। এমনকি কোনো চিকিৎসক ও নার্স তাকে দেখতে যাননি।

পরিবারের এমন অভিযোগের পর রোববার রাতেই হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রেজাউল ইসলামকে প্রধান করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ৬ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে।

মৃত কিশোরের মা শিল্পী বেগম ও বড় ভাই মো. জসিম অভিযোগ করেন, সজীব বাড়িতে কয়েকবার বমি করলে ভোর ৫টার দিকে তাকে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পুরুষ ওয়ার্ডে কোনো বেড খালি না থাকায় নারী ওয়ার্ডের খালি বেডে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত নার্সরা তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করেন। তারা বেড থেকে রোগীকে মেঝেতে নামিয়ে দেন। এ সময় অনুনয়-বিনয় করেও কোনো লাভ হয়রি। উল্টো রোগীকে লাথি দিয়েছেন এক নার্স। ভর্তির ৫ ঘণ্টা পর যখন ডাক্তার এসে স্যালাইন দেন, ততক্ষণে সজীব মারা যায়।

এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামাল হোসেন মুফতি জানান, কিশোর সজীব বমি ও বুকে ব্যাথা নিয়ে সকালে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দিয়েছেন। তবে প্রাথমিকভাবে রোগীর স্বজনদের সঙ্গে নার্সদের অসদাচরণ এবং দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ মিলেছে। তদন্তপূর্বক তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ওই হাসপাতালে একটি শিশু চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে তখনো নার্সদের বিরুদ্ধে কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠিত হলেও তার প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখেনি।

 

 

 

 

আরো পড়ুন

আ.লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কামরুল ইসলাম হাসপাতালে

admin

মেহেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনার চালকসহ হেলপার নিহত

admin

বাবার কোলে গুলিতে শিশু নিহত: ১৭ আসামি,৩ জন গ্রেপ্তার

admin