Online Bangla News
বাংলাদেশ

গাড়ি থামিয়ে ভ্যানচালককে ‘বেতের বাড়ি’, মেয়রের অস্বীকার

সিলেট নগরীর সড়কের ওপরে ভ্যান দাঁড় করিয়ে রাখার কারণে রুবেল আহমদ নামে এক ভ্যানচালককে ‘বেত্রাঘাত’ করার অভিযোগ উঠেছে সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বিরুদ্ধে।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট নগরের চৌহাট্টা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভ্যানচালককে বেত্রাঘাত করায় সমাজের বিভিন্ন মহলে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। যেখানে বেত্রাঘাত নিষিদ্ধ সেখানে মেয়রের এমন আচরণ গ্রহণযোগ্য নয় বলে অভিমত অনেকের। এ নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন মেয়র আরিফ।

রুবেল আহমদ সিগারেট বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর ভ্যান চালক।

একাধিক সূত্র জানায়, শনিবার দুপুরে ভ্যান নিয়ে ওই এলাকায় গিয়েছিলেন রুবেল। সড়কে ভ্যান রেখে পাশের দোকানে সিগারেট দিতে যান। দুপুর ২টার দিকে চৌহাট্টার দিকে যাচ্ছিলেন মেয়র আরিফ। এ সময় সড়কের পাশে একটি ভ্যান দাঁড় করানো অবস্থায় দেখতে পান মেয়র। তখন তিনি গাড়ি থামিয়ে ওই ভ্যানচালককে ডেকে এনে তার হাতে বেত দিয়ে দুইটা বাড়ি মারেন।

এ ঘটনার সময় পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ছাত্র ইউনিয়নের সিলেট জেলা সংসদের সাবেক সভাপতি সপ্ত দাস। তিনি মেয়রের বেত্রাঘাতের একটি ছবি ফেসবুকে আপ করেন। এরপর এ নিয়ে সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সপ্ত দাস ফেসবুকে লেখেন- ‘একজন সিগারেট কোম্পানির কর্মচারী ভ্যান রেখে ডেলিভারি দিতে গেছে পাশের দোকানে। সে সময় পাশ দিয়ে যাচ্ছিল মেয়রের গাড়ি, তাকে দেখে ওই চালক ভ্যান সরিয়ে নিতে গেলে, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী তাকে হাত পাততে বলেন এবং উনার হাতে থাকা লাঠি দিয়ে দুটো বাড়ি দেন। কিন্তু একটু সামনেই রাস্তার পাশে একটি প্রাইভেটকার পার্ক করা ছিল।’

এদিকে ওই ভ্যানগাড়ির সঙ্গে ছিলেন- ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর বিক্রয় প্রতিনিধি ধ্রুব ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, আমি পাশেই ছিলাম। মেয়র চালককে মারছেন দেখে দৌড়ে আসি।
তিনি বলেন, মেয়র এই কাজটি ঠিক করেননি।
এ ব্যাপারে শনিবার রাতে মেয়র আরিফ সময় সংবাদকে জানান, তিনি ভ্যানচালককে মারেননি, অবৈধভাবে ভ্যান পার্কিং করায় তাকে ধমক দিয়ে ভ্যান নিয়ে সরে যেতে বলেছেন।
গত বছর নগরের চৌহাট্টা-জিন্দাবাজার সড়ক সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়ন করে সিলেট সিটি করপোরেশন। এরপর এই সড়ক দিয়ে রিকশাভ্যান চলাচল নিষিদ্ধ করে সিসিক। অবৈধ পার্কিং ও ফুটপাতে হকার বসা নিষেধ লিখে সড়কের বিভিন্ন স্থানে সাইনবোর্ডও লাগানো হয়। তবে এসব নিষেধ অমান্য করে এই সড়কের ফুটপাত দখল করে আছে হকাররা। সড়কের পাশে পার্কিং করে রাখা হয় গাড়িও। ফলে সড়কজুড়ে যানজট লেগে থাকে।

 

 

 

 

 

 

আরো পড়ুন

মেহেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনার চালকসহ হেলপার নিহত

admin

সুইডেনে কোরআন পোড়ানোয় বাংলাদেশের তীব্র নিন্দা

admin

পুরুষ ধর্ষণ’ আইন সংশোধনে রুল জারি

admin